ঢাকা: শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

মৌসুম ভাল যায়নি, স্বীকার করলেন মেসি

এবারের মৌসুমে গ্রীষ্মের সময়টা একেবারেই ভাল যায়নি বলে স্বীকার করেছেন বার্সেলোনার তারকা লিওনেল মেসি। একইসাথে তিনি স্বীকার করেছেন তার এই বাজে ফর্ম ক্লাবের ফলাফলের ওপরও প্রভাব ফেলেছে।

আগস্টে আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ড বলেছিলেন চুক্তির শর্তানুযায়ী ক্লাব ছাড়ার ক্ষেত্রে তার উপর আর কোন রিলিড ক্লজ থাকবে না। কিন্তু বার্সেলোনায় পুরো বিষয়টি নাকচ করে দিয়ে তার উপর ৭০০ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজ দাবি করে। পুরো বিষয়টি নিয়ে তৎকালীন ক্লাব সভাপাতি জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউর সাথে সম্পর্ক বেশ খরাপ হয়ে যায় মেসির। যে কারণে মেয়াদের কিছুটা আগেই সভাপতির পদ ছেড়ে চলে আসতে বাধ্য হন বার্তোমেউ। শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনায় থেকে যাবার সিদ্ধান্ত নেয়া ৩৩ বছর বয়সী মেসি স্প্যানিশ টেলিভিশন লা সেক্সটাতে বলেছেন, ‘মৌসুমের শুরুতেই আমি সবকিছু পিছনে ফেলে এসেছি। সত্যি কথা হচ্ছে ক্লাবের সময়টা আমি এই মুহূর্তে উপভোগ করছি। যদি গ্রীষ্মকালীন সময়টা আমার মোটেই ভাল কাটেনি।’

শনিবার ভ্যালেন্সিয়ার সাথে ২-২ গোলের ড্রয়ের ম্যাচটিতে বার্সার হয়ে প্রথম গোলটি করে মেসি ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তী পেলে ৬৪৩ গোলের ক্লাব রেকর্ড স্পর্শ করেছেন। এবারের মৌসুমে বার্সেলোনার জার্সি গায়ে ১৭ ম্যাচে এটি মেসির নবম গোল। বর্তমানে লা লিগা টেবিলের পঞ্চম স্থানে রয়েছে কাতালান জায়ান্টরা।

এবারের মৌসুমের শেষে মেসির সাথে বার্সেলোনার চুক্তি শেষ হয়ে যাবার পর ফ্রি এজেন্টে পরিনত হবে আর্জেন্টাইন এই সুপারস্টার। আগামী ১ জানুয়ারি থেকেই তিনি অন্য ক্লাবের সাথে আলোচনা শুরু করতে পারবেন।

বার্সেলোনার অন্তবর্তীকালীণ সভাপতি কার্লোস টাসকুয়েটস আগামী মাসে সভাপতি নির্বাচনের আগ পর্যন্ত ক্লাবের সর্বোচ্চ পদে আসীন থাকবেন। অক্টোবরে বার্তোমেউর পদত্যাগের পর তাকে ক্লাবের দায়িত্ব দেয়া হয়। এর আগেও টাসকুয়েটস স্পষ্টভাবেই বলেছিলেন গ্রীষ্মকালীন ট্রান্সফার উইন্ডোতেই মেসিকে ছেড়ে দেয়া উচিৎ ছিল।

করোনাভাইরাসের কারণে ক্লাবের আর্থিক ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে নভেম্বরেই খেলোয়াড়দের কাছ থেকে বেতন কেটে নেয়া হয়। এ কারনে ২৬ বারের লা লিগা চ্যাম্পিয়ন ক্লাবটি প্রায় ১২২ মিলিয়ন ইউরো বাঁচাতে পেরেছে।

সব কিছুকে পিছনে ফেলে নতুন মৌসুম শুরু করা মেসি অবশ্য শীতকালীন বিরতির পর সময়টা আরো ভালভাবে উপভোগ করতে চান। এ সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমি বেশ ভাল অনুভব করছি এবং প্রতিযোগিতায় ফিরে আসার ব্যপারে লড়াই করার জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত আছি। আমি জানি অনেক দিক থেকেই ক্লাব বেশ কঠিন পরিস্থিতি মুখে আছে। যা কিনা মাঠ এবং মাঠের বাইরে উভয় ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য। বার্সাকে ঘিড়ে সবকিছুই এখন এক কঠিন সময়ের মুখোমুখি। তবে আমি নিশ্চিত সকলে মিলে এই কঠিন সময়ে আমরা অবশ্যই ক্লাবকে বাঁচাতে পারবো।’

বাসস

Rent for add

Facebook

for rent