ঢাকা: শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

বুধ গ্রহ : দিনে আগুন রাতে বরফ

গ্রহ
সূর্যের চারিদিকে একবার ঘুরে আসতে বুধের সময় লাগে পৃথিবীর হিসাবে ৮৮ দিন

বুধ গ্রহের ইংরেজি নাম মারকারি। সূর্যের সবচেয়ে কাছের ও সৌরজগতের ক্ষুদ্রতম গ্রহ হলো এই বুধ। সৌরজগতের বাকিগ্রহগুলোর মতো এটিও সূর্যকে কেন্দ্র করে ঘুরছে। সূর্যের খুব কাছের গ্রহ হওয়ার কারণে স্বাভাবিকভাবেই এর তাপমাত্রা অত্যন্ত বেশি।

বুধ গ্রহ সম্পর্কে কয়েকটি প্রাথমিক তথ্য জেনে নেয়া যাক-

বুধের পৃষ্ঠের সঙ্গে চাঁদের অনেক মিল রয়েছে। বুধের পৃষ্ঠে প্রচুর গর্ত রয়েছে।

সূর্যের খুব কাছের গ্রহ বুধের দিনের বেলার তাপমাত্রা অত্যন্ত বেশি, প্রায় ৪০০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও পড়ুন
মানুষের নতুন সাফল্য, চাঁদের আলোকিত অংশে পানির অস্তিত্বের প্রমাণ পেল নাসা

বুধের দিনের তাপমাত্রা শুনে রাতের তাপমাত্রা সম্পর্কে ধারণা করা মুশকিল। বুধের আসলে কোনো বায়ুমণ্ডল নেই। আর এই কারণে দিনের এই উচ্চ তাপমাত্রা রাতে আর ধরে রাখতে পারে না গ্রহটি। আর তাই রাতে বুধে নেমে আসে কনকনে শীত। তাপমাত্রা পৌঁছায় মাইনাস ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

বুধে মধ্যাকর্ষণ শক্তি খুবই কম।

বুধে কোনো বায়ুমণ্ডল নেই। সে কারণে বুধে কোনো বাতাসও নেই, বিশেষভাবে বলার মতো আবহাওয়াও নেই।

বুধের পৃষ্ঠে কোনো পানি নেই। তবে পৃষ্ঠতলে পানি থাকতেও পারে। এ বিষয়ে এখনও নিশ্চিত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন
পৃথিবীতে পাথরের বৃষ্টি আজগুবি, দূরের এক গ্রহে নিয়মিত ঘটনা

একইভাবে বুধের পৃষ্ঠে বাতাসের অস্তিত্ব না থাকলেও পৃষ্ঠতলে কোনোভাবে বাতাস আটকে থাকতে পারে বলেও ধারণা করা হয়।

এ গ্রহের ওজন পৃথিবীর ৫০ ভাগের ৩ ভাগ।

সূর্যের চারিদিকে একবার ঘুরে আসতে বুধের সময় লাগে পৃথিবীর হিসাবে ৮৮ দিন। অর্থাৎ ৮৮ দিনে এক বছর হয় বুধ গ্রহে।

Rent for add

Facebook

for rent